CAll Us: 01798669999

Facebook & Instagram Ad Pricing

  • TEST DRIVE

  • $10 /5 days

  •   Setup Report
  •   End Report
  •   Editing Allowed
  • Order Now
  • STARTER

  • $50 /per month

  •   Setup Report
  •   End Report
  •   Editing Allowed
  • Order Now
  • STANDARD

  • $150 /per month

  •   Setup Report
  •   End Report
  •   Editing Allowed
  • Order Now
  • BUSINESS

  • $300 /per month

  •   Setup Report
  •   End Report
  •   Editing Allowed
  • Order Now
  • BUSINESS PLUS

  • $500 /per month

  •   Setup Report
  •   End Report
  •   Editing Allowed
  • Order Now
  • MY CHOOSE

  • $ YOUR BUDGET /per month

  •   Setup Report
  •   End Report
  •   Editing Allowed
  • Order Now

কিছু প্রশ্ন ও উত্তরঃ

১। ফেইসবুকে এ্যাড দিতে সর্বনিন্ম কত টাকা লাগে?

আপনার নিজের এ্যাডভার্টাইজিং একাউন্ট থাকলে আপনি সর্বনিন্ম দিনে দৈনিক ১ ডলার দিয়ে এ্যাড দিতে পারেন।বাজেট যত বেশী হবে প্রমোশন তত বেশী হবে এবং ফলাফলও তত ভালো হবে। দৈনিক ৫ ডলার খরচ করলে যতগুলো ক্লিক পড়বে (বা যতবার দেখানো হবে) ৫০ ডলার খরচ করলে ফলাফল তার দশগুন বেশী হবে। বেশী ক্লিক হলে ফ্যানসংখ্যাও (লাইক) সাধারনত আনুপাতিক হারে বেড়ে যায়। ব্যাবসায়িক কারন ও কোয়ালিটি সার্ভিস দেয়ার জন্য আমাকে আমার সর্বনিন্ম বাজেট নির্ধারন করতে হয়েছে। আমাদের সাহায্য নিয়ে ফেইসবুক প্রমোশনের সর্বনিন্ম বাজেট: ৫০০০ টাকা।

  • প্রতি ডলার খরচের জন্য আমাদের চার্জ ১০০ টাকা।
  • মিনিমাম বাজেট ৫০০০ টাকা  ($50 will be spent)।

পরীক্ষামুলকভাবে এ্যাড দিতে (Test Drive plan) আপনাকে খরচ করতে হবে ১০০০ টাকা। যেটা দিয়ে সর্ব্বোচ্চ পাঁচ দিন প্রমোশন করা যাবে। এ্যাড চলাকালিন যে কোন সময় আপনার বাজেটের টাকা বাড়িয়ে নিতে পারবেন। আপনার সুবিধার্থে এখানে বাজেটের একটি ধারনা দেয়া আছে  Facebook Ad Budget Calculator

**এর চাইতেও কম বাজেটে ফেইসবুক এ্যাড গ্রহন করে। কিন্ত এর চাইতে কম বাজেটের এ্যাড থেকে ভালো রেজাল্ট আশা করা যায় না। বরং পুরো ফেইসবুক এ্যাডভার্টাইজিং বা আমাদের সার্ভিস কোয়ালিটি নিয়ে অহেতুক প্রশ্ন উঠতে পারে।

২। এ্যাডের খরচ কিভাবে হিসেব করা হয়?

– এ্যাড তৈরীর সময় দুইটি অপশন দেয়া হয়। যেখান থেকে আপনার সুবিধামতো বিলিং অপশন বেছে নিতে পারেন।

ক্লিকের হিসেব (CPC): যখন কোন ফেইসবুক ব্যাবহারকারী আপনার এ্যাডটি দেখে এ্যাডটিতে ক্লিক করবে, তখন ফেইসবুক চার্জ করবে।
ইম্প্রেশনের হিসেব (CPM): প্রতি ১০০০ বার দেখানোর জন্য।

৩। আমার এ্যাডটি কতবার দেখানো হবে?

– এটি ফেইসবুকের নিজস্ব কিছু নিয়মে নির্ধারিত হয় (বাজেট, এ্যাড কোয়ালিটি স্কোর, প্রতিদ্বন্দী এ্যাডের পরিমান ও বাজেট ইত্যাদী)। প্রতি ক্লিকের হিসেবে ৫০০০ টাকা বাজেটে মোটামুটি ৩০০০-৫০০০ টি ক্লিক হতে পারে। প্রতি ১ হাজারবার দেখানোর হিসেবে এ্যাডটি ২ থেকে ৩ লক্ষবার দেখানো হবে।

৪। এ্যাডটি কতদিন চলবে?

– এটি আসলে আপনার সিদ্ধান্ত। আপনি আপনার বাজেটের ডলার আপনার সুবিধামতো দিনে খরচ করতে পারেন। ফেইসবুকের স্মার্ট এ্যালগরিদম ওই বাজেটকে ওই সময়ের মধ্যেই খরচ করে। যেমন $50 বাজেট আপনি ১ দিন, ২ দিন, ৫ দিন ইত্যাদী ডিওরেসনে খরচ করতে পারেন।

৫। কিভাবে বুঝব কত টাকা খরচ হলো বা কতজন এ্যডটি দেখল?

– এ্যাডের রিপোর্টের কপি ই-মেইলে পাঠানো হবে। এ্যাড চলাকালিন সময় লাইভ রিপোর্ট-ও দেখে যেতে পারেন। আর আমাদের Business & Enterprise ব্যাবহারকারীদের লাইভ রিপোর্ট দেখার ব্যাস্থা রয়েছে যাতে যে কোন সময় নিজস্ব ফেইসবুক একাউন্ট থেকেই রিপোর্ট দেখতে পাবেন।

৬ । আপনার মতো আরো অনেকে এই সার্ভিস দিচ্ছে। আমি কেন আপনার সার্ভিস নেব?

– আমরা আাপনার এ্যাড নিজেই তৈরী, পরিবর্তন এবং লাইভ রিপোর্ট দেখার সুবিধা দিচ্ছি।  কত টাকার বিনিময়ে আমাদের কাছে কি প্রত্যাশা করতে পারেন তা সবই এখানে পরিস্কারভাবে বলে দেয়ার চেষ্টা করেছি। অন্যদের মতো তথ্য জানতে ফোন করতে বলিনি। এর পরেও আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে অবশ্যই আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। আমরা ফেইসবুকের এই সার্ভিসটি সুলভ মুল্যে সরবরাহ করার চেস্টা করেছিমাত্র যেখানে এ্যাড কিভাবে চলবে সেই সিদ্ধান্তটি আপনার। আমরা কোন কৃত্রিম প্যাকেজ তৈরী করিনি। আমরা অন্যদের মতো পেইজের ‘লাইক’ কন্ট্রাক্ট করছিনা অথবা কতগুলো ক্লিক হবে সেভাবে চুক্তি করে নিচ্ছি না। আমরা আপনার এ্যাডগুলো স্বাভাবিকভাবে চলতে দিব। এতে করে স্বাভাবিকভাবেই আপনি ক্লিক অথবা লাইক পাবেন। কোন ধরনের ম্যানিপুলেশনের প্রশ্ন নেই। আমাদের সার্ভিস নেয়ার কয়েকটি কারন হতে পারে:

  • Real time account access.
  • Detailed and transparent reporting.
  • No unrealistic commitment
  • No contract on “Like”
  • Campaign consultancy.
  • 100% happy history ?

৭। আমি ২৫০ ডলারের এ্যাড দিতে চাই। আমি ভাবছি ৫ দিনের জন্য দেব। এখন এই এ্যাড ৫ দিনের জন্য না দিয়ে যদি ১০ দিনের জন্য যদি দেই তাহলে কি কিছু বেশী ক্লিক/লাইক পাব?

-পত্রিকার বিজ্ঞাপন যেমন বেশীদিন চালালে বেশী মানুষ দেখবে, ফেইসবুকের বিজ্ঞাপন ঠিক তেমনটি নয়। আপনার বাজেট অনুযায়ী এটি দেখানো হবে। বাজেট ঠিক রেখে দিনের সংখ্যা বাড়িয়ে দিলে, প্রতিদিনের দেখানোর হার কমে আসবে। আপনার ২৫০ ডলার ৩ দিনে যদি ৩০,০০০ ক্লিক এনে দেয় তাহলে ১০ দিনেও ৩০,০০০ -ক্লিকই এনে দিবে। এ্যাডের সময় বাড়ালে প্রতি দিনের পাফরমেন্স এবং খরচ কম বা বেশী হওয়া ছাড়া অন্য কোন সুবিধা নেই। আপনি মোট যত টাকা খরচ করছেন, সে অনুযায়ী ফলাফল হবে। এ্যাড কম দিন চলুক বা বেশী, মোট ফলাফল প্রায় একই থাকবে।

ফেইসবুকের এ্যাড দেখানোর ফর্মুলা:
এ্যাড পারফরর্মেন্স = (বাজেট/সময়) x কোয়ালিটি স্কোর অর্থাৎ

  • বাজেট বাড়ালে পারফরর্মেন্স বাড়বে (সময় ও কোয়ালিটি একই খাকলে)
  • সময় বাড়ালে পারফরর্মেন্স কমবে (বাজেট ও কোয়ালিটি একই খাকলে)
  • কোয়ালিটি বেড়ে গেলে পারফরর্মেন্স বাড়বে (বাজেট ও সময় একই খাকলে)

৮। সবচেয়ে কম খরচে অর্থাৎ ৫০০০ টাকার এ্যাডে একটা পেইজে আনুমানিক কত জন ফ্যান হতে পারে?

– আসলে কতজন ফ্যান হবে সেটা নির্দিষ্টভাবে বলা যায় না। যদি শুধু বাংলাদেশ টার্গেট করা হয়, তাহলে ৩০,০০০ থেকে ৪৫,০০০+ (ডিসেম্বর ২০১৫ অনুযায়ী) ভিজিটর আপনার পেইজ ঘুরে আসবে। যেসব ভিজিটরের আপনার পেইজ ভালো লাগবে, তারাই লাইক দিয়ে ফ্যান হবে। যার ভালো লাগবে না,সে হয়তো ‘লাইক’ করবে না।

৯। আচ্ছা, কতজন আমার পেইজে এ্যাডের মাধ্যমে এসেছে তার সঠিক সংখ্যা কি জানা যায়?

– হ্যাঁ জানা যায়। এটা ফেইসবুক রিপোর্টে থাকে।

১০। ডলারের দাম ৮০ টাকা। আপনারা ১০০ টাকা করে নিচ্ছেন কেন?

– ফেইসবুক এ্যডভার্টাইজিং একটি প্রফেশনাল সার্ভিস, শুধুমাত্র ডলার বিক্রি নয়। অনেক প্রতিষ্ঠান অন্যভাবে কোটেশন করে যেমন প্রতি ক্লিক ২ টাকা বা প্রতি লাইক ৫ টাকা ইত্যাদি। কিন্তু আমাদেরএই নিয়মের স্বচ্ছতার জন্য আজকাল প্রায় সবাই এটা ব্যাবহার করা শুরু করেছে। এখানে আমরা একটি ফ্ল্যাট রেট দেয়ার চেষ্টা করেছি। এই টাকার মধ্যে ডলারের দাম + ব্যাংকের চার্জ + মেইন্টেন্যান্স খরচ + আমাদের প্রফিট সবকিছুই আছে । আলাদা ভাবে এইসব হিসেব করার চাইতে ডলারের রেটে সবকিছু নিয়ে আসায় যে কোন বাজেটের এ্যাডের হিসেব সহজেই করা যায়।

১১। আপনাদের রেটটা একটু বেশী মনে হচ্ছে। আমি অল্প আয়ের ব্যাবসায়ী/ছাত্র/অনেক দুরে থাকি – আমার জন্য কিছুটা ছাড় দেয়া যাবে?

– যতটুটু সম্ভব ছাড় দিয়েই আমাদের রেট নির্ধারিত হয়েছে। আর কোন ডিসকাউন্টের অনুরোধ রাখা আমাদের পক্ষে সম্ভব নয়।

১২। আপনাদের রেটটা অনেক বেশী, অনেকেই আছে যাদের রেট আরও কম।

আমাদের পরামর্শ হবে সস্তা ডলার রেট বা কম ডেইলি বাজেট অফার করার জন্য ভুইফোঁড় প্রতিষ্ঠান/ফ্রিল্যান্সারের কাছে না যাওয়ার জন্য। ফ্রিল্যান্সিং এর ডলার ক্যাশ করার জন্য সাইড বিজনেস হিসেবে এ্যাডভার্টাইজিং করি না। আমাদের মনোযোগ এ্যাডভার্টাইজিং-এ, যাতে ক্লায়েন্টের বিজনেস সম্ভাব্য বেশী লাভবান হয়।

১৩। আপনার সাথে যোগাযোগের উপায় কি?

আমাদের ফেসবুক পেজে মেসেজ করুন । আমাদের অফিসের ঠিকানাঃ 196 Green Road (2nd Floor), Dhanmondi, Dhaka-1205. (অফিসে আসার আগে কল করে আসবেন) – ফোন: 01798 66 99 99

শেষ কথাঃ

আমরা অনেক সময় দেখে থাকি অনেক ফেসবুক পেজে লাখ লাখ likes. এগুলোর সবগুলো কি Real facebook user likes দিয়েছে?? জানা নেই। কারন কিছু অসাধু ব্যবসায়ী অল্প টাকার বিনিময়ে fake facebook user দ্বারা এইসব বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকে। এর মাধ্যমে লাভবান হছে এইসব অসাধু ব্যবসায়ী, কারন আপনি কিন্তু আপনার Target likes পাচ্ছেন না। যার ফলে আপনার পেজে লাখ লাখ likes থাকার কারনেও তাদের থেকে তেমন সাড়া পাচ্ছেন না। শেষ পর্যন্ত আপনি হতাশ হচ্ছেন এবং ভাবছেন ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দেওয়ার পরও মানুষ কেন আপনার ব্যবসা সম্পর্কে জানছে না। এর একটাই কারন fake facebook user দ্বারা আপনার facebook fan page এর likes বাড়ানো হচ্ছে যা অনলাইনে কিনতে পাওয়া যায়। কখনই বলছি না আমাদের মাধ্যমে ফেসবুকে অ্যাড দিন, তবে কেউ যদি আপনাকে বলে থাকে খুব অল্প টাকায় ফেসবুকে প্রায় লাখ খানেক likes এনে দিতে পারবে, তাদেরকে অবশ্যই জিজ্ঞাসা করবেন ফেসবুকে অ্যাড দিলে ফেসবুক একটা রিপোর্ট জেনারেট করে, সেই রিপোর্টি যেন আপনাকে দেওয়া হয় অথবা ঐ বিজ্ঞাপনের screenshot টি দিতে। এর মাধ্যমে আমরা আশা করি আপনি আপনার টাকার যথাযথ মুল্য পাবেন। সব শেষে বলতে চাই, Branding is the POWER ?